অনলাইনে বিদ্যুৎ বিল চেক। অনলাইনে পল্লী বিদ্যুৎ বিল চেক করার নিয়ম

অনলাইনে বিদ্যুৎ বিল দেখার নিয়ম


বর্তমান সময়ে বিদ্যুৎ ব্যবহার করে না এমন লোক খুঁজে পাওয়া দুষ্কর, বাংলাদেশের আপনি যেখানে যান নাই কেন প্রায়ই প্রত্যেক জায়গাতেই বিদ্যুতের ব্যবস্থা দেখতে পাবেন। ঠিক তেমনি আমরা অনেকে বিদ্যুৎ বিল পরিশোধ করে তাকে অনলাইনের মাধ্যমে এবং আপনি চাইলে অনলাইনে বিদ্যুৎ বিল চেক করতে পারবেন।

যেহেতু আমরা অনলাইনের মাধ্যমে বিদ্যুৎ বিল পরিশোধ করতে পারতেছি তাহলে কেন পারব না যে অনলাইনে vidyut bill check করতে। আসলে এই পদ্ধতিটাও খুব সহজে একটা পদ্ধতি অর্থাৎ আপনার কত টাকা বিল এসেছে সেটা আপনি অনলাইনের মাধ্যমে খুব সহজে দেখতে পাবেন। 

যদিওবা সেই পদ্ধতিটা অনেকেই জানে না যার কারণে যতক্ষণ পর্যন্ত বিদ্যুৎ অফিস থেকে আমাদেরকে রিপোর্ট না পাঠায় আমরা জানতে পারি না আমাদের বিল কত এসেছে।

আজকে আর্টিকেলে আমি আপনাদের সাথে শেয়ার করব কিভাবে আপনি অনলাইনের মাধ্যমে জাস্ট আপনার মোবাইল ফোনটা ব্যবহার করে আপনার বিল কত টাকা এসেছে সেটা জানবেন। তো আজকের আর্টিকেল থেকে আপনারা জানতে পারবেন অনলাইনে পল্লী বিদ্যুৎ বিল চেক করার নিয়ম।

চাইলে খুব সহজেই আপনার কাছে যে বিকাশ একাউন্টা রয়েছে সেখান থেকেও আপনার vidyut bill দেখুন অর্থাৎ দেখতে পারবেন। আবার অনেকেই বিদ্যুৎ বিল ডিপিডিসি ব্যবহার করে তাকে যার কারণে গুগলের মধ্যে সার্চ করে ডিপিডিসি বিদ্যুৎ বিল চেক। তাই চিন্তার কোন কারণ নেই কেননা সবগুলো বিষয়ে এখানে তুলে ধরার চেষ্টা করবো ইনশাআল্লাহ।

অনলাইনে বিদ্যুৎ বিল চেক করার নিয়ম | বিদ্যুৎ বিল দেখার নিয়ম

আমার জানামতে এবং একটা ওয়েবসাইটের যত তোমাকে এখনো পর্যন্ত যে বিদ্যুৎ বিল অফিসিয়াল ওয়েবসাইট রয়েছে সেখান থেকে আপনি আপনার বিদ্যুৎ বিল কত টাকা এসেছে সেটা দেখতে পাবেন না।

তবে আশা করা যায় খুব দ্রুত তারা এ সার্ভিসটি লঞ্চ করবে বাংলাদেশের নাগরিকদের জন্য। যখন এই সার্ভিসটা চালু হবে তখন আমরা খুব সহজেই তাদের সরাসরি অফিসিয়াল ওয়েবসাইট থেকে কোন জামিলা ছাড়াই আমাদের তথ্যটা সংগ্রহ করতে পারবে।

সুতরাং এখন যদি আপনার vidyut bill দেখতে চান তাহলে অবশ্যই আপনাকে ভিন্ন কোন পদ্ধতি অবলম্বন করতে হবে। অনলাইনে বিদ্যুৎ বিল চেক করার জন্য আপনাকে তিনটা উপায় অবলম্বন করতে হবে। জন্ম নিবন্ধন যাচাই কপি

অর্থাৎ আপনি মাত্র তিনটি পদ্ধতি অবলম্বন করার মাধ্যমে আপনার চালানো ইলেকট্রিসিটির মধ্যে বিল কত এসেছে সেটা জানতে পারবেন। সেগুলো আমি আপনাদের সুবিধার্থে নিচে দিয়ে দিয়েছি এবং সবগুলো থেকে আপনারা কিভাবে দেখবেন এটাও বলে দেওয়ার চেষ্টা করবেন ইনশাআল্লাহ।

তার জন্য আমি আপনাদেরকে আবারো বলছি আপনি যদি বিস্তারিত আমি জানতে চান তাহলে অবশ্যই আপনি আর্টিকেলটি শেষ পর্যন্ত পড়ার চেষ্টা করবেন। কেননা আপনি যদি স্ক্রল করেন তাহলে অনেক কিছু মিস করবেন।

অনলাইনে বিদ্যুৎ বিল চেক করার নিয়ম কয়টি?

আপনি মাত্র তিনটি পদ্ধতি অবলম্বন করার মাধ্যমে আপনার কত টাকা বিল এসেছে সেটা দেখতে পাবেন। সুতরাং সেটা জানার জন্য নিচে থেকে আপনার তথ্যটা সংগ্রহ করুন -- 

  • সরাসরি সরাসরি বিদ্যুৎ বিল যে অফিসটা রয়েছে আপনার নিকটস্থ সেখানে যোগাযোগ করুন।
  • বিদ্যুৎ বিল কাগজ কিংবা অভিযোগ নাম্বারে কল করে।
  • বিকাশের মাধ্যমে।

সরাসরি অফিস থেকে বিদ্যুৎ বিল চেক করার নিয়ম

আপনি যদি খুব সহজে এবং নির্ভুলভাবে আপনার ব্যবহৃত ইলেকট্রিসিটির মধ্যে বিল কত টাকা উঠেছে সেটা দেখতে চান তাহলে সবচেয়ে সহজ উপায়টা হচ্ছে সরাসরি বিদ্যুৎ বিল অফিসের যোগাযোগ করার মাধ্যমে।

এই পদ্ধতিটা সহজ এবং আপনার জন্য খুব দরকারী, কেননা সরাসরি অফিসে যোগাযোগ করার মাধ্যমে আপনার বিল কত টাকা এসেছে সেটাও দেখতে পারবেন, সাথে কোন অভিযোগ থাকলে সেটাও জানাতে পারবেন। বাংলাদেশের সেরা গজল | কলরব ইসলামী গজল

সুতরাং তার জন্য আপনার আশেপাশে কিংবা আপনি যে লাইন থেকে ইলেকট্রিসিটি ব্যবহার করেন সেটা কোন অফিস থেকে এসেছে সেটা যাচাই করুন। তাছাড়া আপনার নিকটস্থ কোন একটা ইলেকট্রিসিটি অফিসে যোগাযোগ করার মাধ্যমে জানতে পারবেন।

তাই আপনি যদি আপনার সমস্যার সমাধান করতে চান এবং বিল কত টাকা এসেছে সেটা জানতে চান তাহলে অন্যতম একটা উপায় হচ্ছে এটা। সহজ ভাষায় বলতে গেলে আপনার যে ইলেকট্রিসিটি বিলের আগের কাগজটা রয়েছে সেটা সাথে নিয়ে যোগাযোগ করু অফিসে।

তারা আপনার মিটার নাম্বার ইত্যাদি দেখার মাধ্যমে জানিয়ে দেবে আপনার বিল কত টাকা এসেছে। যদি কোন সমস্যার কারণে তারা জানতে না পারে কিংবা সেবা এভেলেবেল না থাকে তাহলে আপনাকে কোন একটা নির্দেশনা দিবে। আশা করি বুঝতে পেরেছেন সরাসরি অফিসে গিয়ে বিদ্যুৎ বিল দেখার নিয়ম

কল করে বিদ্যুৎ বিল চেক করার নিয়ম

কম বেশি আমরা সকলেই জানি আমরা যখন কোন একটা কিছুর সম্মুখীন হয় বিদ্যুৎ রিলেটেড তখন আমরা কোন একটা নির্দিষ্ট নাম্বারের মধ্যে কল করে থাকি। বিশেষ করে আমরা ঐ সমস্ত নাম্বারে কল করে যেগুলো কিনে আমাদের electricity বিলের কাগজের মধ্যে থাকে।

সুতরাং আমি মনে করি আপনি যদি আপনার বিল দেখার জন্য যে কত টাকার বিদ্যুৎ আপনি ব্যবহার করেছেন তাহলে আপনি সেই নাম্বারগুলোতে কল করে দেখতে পারেন।

যদি তারা আপনার তথ্য দেওয়ার জন্য সম্ভব হয় তাহলে খুব সহজে আপনাকে জানিয়ে দেবে আপনার কত টাকা ফিরে এসেছে। যদি তারা কোন সমস্যার কারণে না পারে তাহলে আপনাকে একটা দিক নির্দেশনা দিবে এটাই সঠিক।

তবে উপর আমি যে পদ্ধতিটা বলেছিলাম সেই পদ্ধতিটার সেই এটা আরো সহজ বললেই চলে। কেননা এখানে আপনাকে অফিসে যেতে হচ্ছে না সশরীরে বরং শুধু নাম্বারটা নিয়ে আপনার মোবাইল থেকে কল করবেন।

যদিওবা অনেক ক্ষেত্রে এটা সম্ভব না হয় তাহলে নিচের পদ্ধতিটা দেখতে পারেন। কেননা আমরা কম বেশি সকলেই জানি বিকাশের মাধ্যমেও ইলেকট্রিসিটি বিল প্রদান করা যায়।

সুতরাং বিকাশ একাউন্ট এ প্রবেশ করে যখন আপনার মিটার নাম্বার ইত্যাদি প্রোভাইড করবেন তখন আপনাকে দেখিয়ে দেওয়া হবে আপনার বিল কত টাকা আছে। সুতরাং সেখান থেকেও জানতে পারবেন আপনার ইলেক্ট্রিসিটি বিলের তথ্য।

বিকাশে বিদ্যুৎ বিল চেক করার নিয়ম

বাড়িতে বসে আপনি যদি অনলাইনে মাধ্যমে বিদ্যুৎ বিল দেখতে চান তাহলে অন্যতম একটা মাধ্যম হচ্ছে বিকাশ। কেননা বিকাশ ব্যবহার করার জন্য তো আর অন্য কোথাও যেতে হচ্ছে না নিজের বাড়িতে বসে এটা করা সম্ভব।

দিন চলে যাচ্ছে আমরা দেখতে পাচ্ছি বিকাশ তত উন্নতির দিকে অগ্রসর হচ্ছে। কেননা তারা প্রতিনিয়ত চাই যেন গ্রাহককে ভালো কিছু উপহার দিতে পারে।

তাছাড়া বাংলাদেশের মধ্যে বর্তমান সময়ের যতগুলো মোবাইল ব্যাংকিং সেবা রয়েছে তার মধ্যে সবচেয়ে পপুলার যেটা সেটা হচ্ছে বিকাশ। যদি কারো কাছে মোবাইল ব্যাংকিং থাকে তাহলে তার কাছে আমি দেখতে পাই অবশ্যই বিকাশ রয়েছে।

তাই আমি আশা করি আপনার কাছে একটা বিকাশ একাউন্ট রয়েছে কিংবা আপনার বন্ধুবান্ধব,আত্মীয় স্বজনের কাছে। সুতরাং vidyut bill দেখার জন্য যদি আপনার কাছে বিকাশ একাউন্ট না থাকে তাহলে আপনার আশেপাশের কারো কাছ থেকেও দেখতে পারবেন।

সুতরাং আপনি যদি জানতে চান যে, আপনার বিল কত টাকা এসেছে সেটা তাহলে আপনি বিকাশের মাধ্যমে দেখতে পারবেন। সবচাইতে আমার ফেভারিট যেটা বিদ্যুৎ বিল দেখার জন্য সেটা হচ্ছে বিকাশ।

কেননা এখানে আপনাকে নির্ভুল তত দেখাবে যে আপনি গত মাসের বিল পরিশোধ করেছেন কিনা এবং চলতি মাসে কত টাকা বিল এসেছে। তাই আর দেরি না করে এই বিষয়টা আপনি জেনে রাখুন অবশ্যই আমি মনে করি আপনার কাজে আসবে।

বিকাশের মাধ্যমে কয় পদ্ধতিতে বিদ্যুৎ বিল চেক করা যায়

এখন যেহেতু আমরা জানবো বিকাশের মাধ্যমে বিদ্যুৎ বিল দেখার নিয়ম তাহলে তার আগে একটা বিষয় জানা দরকার সেটা হচ্ছে। আসলে মূলত কয় পদ্ধতি অবলম্বন করার মাধ্যমে এই কাজটা সম্পন্ন করা যায় অর্থাৎ আপনার বিদ্যুৎ বিল check করতে পারবেন।

আমার জানা মতে আপনি যদি এই কাজটা করতে চান তাহলে মাত্র বিকাশের মাধ্যমে দুটি পদ্ধতি অবলম্বন করার মাধ্যমে করতে পারবেন। অর্থাৎ প্রথমটা হচ্ছে বিকাশের যে অফিসিয়ালি অ্যাপসটা রয়েছে সেটার মাধ্যমে। আর অফারটা হচ্ছে আমরা যে ইউএসএসডি কোড ডায়াল করার মাধ্যমে বিকাশ ব্যবহার করে থাকি সেটার মাধ্যমে।

আপনাদের সুবিধার্থে এখন আমি প্রত্যেকটা বিষয়ে আলাদা আলাদা ভাবে বলে দেওয়ার চেষ্টা করব যে, কিভাবে আপনারা আপনাদের ইলেকট্রিসিটি বিল কত টাকা এসেছে সেটা দেখবেন। তাহলে চলুন আর কথা না বাড়িয়ে শুরু করা যাক

বিকাশ অ্যাপ এর মাধ্যমে ইলেকট্রিসিটি বিল চেক

সুতরাং আপনি যদি খুব সহজে এবং খুব তাড়াতাড়ি আপনার এই কাজটা কমপ্লিট করতেছেন তাহলে বিকাশের মধ্যে সবচেয়ে সহজ পদ্ধতি যেটা রয়েছে সেটা হচ্ছে অ্যাপ এর মাধ্যমে।

সুতরাং আপনার যদি একটা একাউন্ট থাকে তাহলে প্লে স্টোরে গিয়ে সেখান থেকে বিকাশ অ্যাপসটা ডাউনলোড করে ফেলুন এখনি। তারপর আপনার যে নাম্বারে বিকাশ একাউন্ট খোলা আছে সেটা দিয়ে বিকাশ অ্যাপের মধ্যে লগইন করে ফেলুন। অনলাইনেই মিলবে জাতীয় পরিচয় পত্র

সুতরাং বিকাশ এফ এর মাধ্যমে ইলেকট্রিসিটি বিল চেক করার জন্য নিচে দেওয়া সমস্ত প্রসেস গুলো অবলম্বন করেন এবং সে অনুযায়ী আপনার কাজটা কমপ্লিট করার চেষ্টা করুন।

  • সর্বপ্রথম আপনার বিকাশ অ্যাপ্লিকেশন টা আপনার নাম্বার দিয়ে লগইন করার পরে ওপেন করুন।
  • তারপর সেখানে আপনি বিকাশের অনেকগুলো মেনু দেখতে পাবেন সেখান থেকে পে বিল/pay bill এ ক্লিক করুন।

  • সেখানে আপনার সামনে আরো অনেকগুলো অপশন শো করবে বিল দেওয়ার জন্য সুতরাং সেখান থেকে electricity সিলেক্ট করুন।

  • তারপর আপনার সামনে আবারো অনেক অপশন শো করবে সেখান থেকে ইলেকট্রিসিটি বিল আপনারটা কোন ধরনের সেটা সিলেক্ট করুন যেমন palli bidyut prepaid/postpaid ইত্যাদি।

  • তারপর আপনার সামনে আরেকটা খালিঘর আসবে সেখানে আপনার এসএমএস অ্যাকাউন্ট নাম্বার কিংবা যেটা চাওয়া হবে সেটা দিতে হবে।

  • সর্বশেষ proceed to pay নিচের এই বাটনটাতে ক্লিক করুন।

ঠিক উপরে দেওয়া সমস্ত পদ্ধতি যখন আপনি কমপ্লিট করে ফেলবেন অর্থাৎ আপনার থেকে যে তথ্য হবে সবগুলো পূরণ করার পরেই আপনার বিলটা দেখতে পারবেন।

সারাংশঃ বিকাশ অ্যাপ এর মাধ্যমে বিদ্যুৎ বিল দেখার জন্য সর্বপ্রথম অ্যাপ এ প্রবেশ করার পরে pay bill এ ক্লিক করে ইলেকট্রিসিটি সিলেট করুন, তারপর আপনারটা কোন টাইপের সেটা সিলেক্ট করার পরে আপনার থেকে যেটা চাওয়া হবে সেটা দিন সর্বশেষ আপনি আপনার vidyut bill দেখতে পারবেন।

ইউএসএসডি কোড ডায়াল করার মাধ্যমে বিদ্যুৎ বিল যাচাই করার নিয়ম

এই পদ্ধতিটাও খুব সহজ এবং জেনে নেওয়া দরকার কেননা ওপরে যে পদ্ধতিটি আমি শেয়ার করেছি সেটা শুধুমাত্র স্মার্টফোনের মধ্যে সম্ভব যেখানে কিনা বিকাশ অ্যাপ্লিকেশন টা সাপোর্ট করে।

তবে আপনি যদি এই পদ্ধতিটা জানেন তাহলে আপনার স্মার্টফোনটা একক কিংবা বাটন ফোন প্রত্যেক ক্ষেত্রেই আপনি এই পদ্ধতিতে ব্যবহার করতে পারবেন।

কেননা এখানে ইউএসএসডি কোড ডায়াল করার মাধ্যমে আপনাকে এই কাজটি করতে হবে। তো আপনি তো জানানো ইউএসএসডি কোড বাটন মোবাইলে ব্যবহার করা যায় এবং স্মার্টফোনের মাধ্যমে ব্যবহার করা যায়। বিকাশ সেভিংস

সুতরাং আপনি যদি ইউএসএসডি কোড ডায়াল করার মাধ্যমে আপনার ইলেকট্রিসিটি বিল যাচাই করতে চান তাহলে নিচের দেওয়া প্রসেস গুলো খুব ভালোভাবে ফলো করুন এবং সে অনুযায়ী কাজ করুন।

  • সর্বপ্রথম আপনার ফোনের ডায়াল ফেরে চলে যেতে হবে সুতরাং আপনাকে ডায়াল করতে হবে *২৪৭# 
  • আপনার সামনে অনেকগুলো বিকাশের মানুষও করবে সেখান থেকে 6. Bill pay মেনুটা সিলেক্ট করুন।

  • আবারো আপনার সামনে বিকাশ এর কয়েকটা মেয়ের ইস্যু করবে সেখান থেকে এক নাম্বার অর্থাৎ ‌1. Electricity prepaid অথবা 2. Electricity postpaid আপনার যেটা সেটা সিলেক্ট করুন।

  • এখন আপনার সামনে বিকাশের আরো কয়েকটা মেনু শো করবে সেখান থেকে আপনার বিদ্যুৎ বিলটি কোন টাইপের সেটা সিলেক্ট করুন nesco/desco/dpdc ইত্যাদি।

  • আপনার সামনে এখন বিকাশের দুইটি মানুষের করবে সেখান থেকে সর্বপ্রথম 1. check Bill এই মেনুটা সিলেক্ট করুন।

  • আবারো আপনার সামনে বিকাশের দুইটি মানুষ করবে সেখান থেকে এক নম্বর অর্থাৎ input SMS A/C number সিলেক্ট করুন।

  • এখন আপনার সামনে একটা খালি ঘর আসবে সুতরাং এখানে আপনাকে আপনার একাউন্টের যে এসএমএস নাম্বারটা রয়েছে সেটা বসিয়ে দিন।

  • এখন আপনার সামনে আরেকটা খালি ঘর আসবে মূলত সেখানে আপনি কোন মাস-বছরের বিল চেক করতে চাচ্ছেন সেটা দিবেন। মূলত এখানে প্রথমে মাস দিতে হবে তারপর বছর দিতে হবে যেমন 092022 তারপর নিচের send বাটনে ক্লিক করুন।

  • তারপর আপনার সামনে আরেকটা অপশন আসবে যেখানে মূলত আপনার বিকাশের যে পিনটি রয়েছে সেটা দিতে হবে।

উপরে দেওয়ার সমস্ত প্রসেস যখন আপনি কমপ্লিট করে ফেলবেন তখন আশা করি আপনাকে ফ্রিতে এসএমএস এর মাধ্যমে জানিয়ে দেওয়া হবে আপনার ইলেকট্রিসিটি বিল কত হয়েছে।

সারাংশঃ আপনার যদি বিকাশ একাউন্ট থাকে তাহলে ডায়াল ফেটে গিয়ে *247# ডায়াল করার পরে মেনু থেকে 6 সিলেক্ট করার পরে আপনার পরবর্তী তথ্যগুলো বসিয়ে দেওয়ার পরেই আপনি vidyut bill check চেক করতে পারবেন।

উপসংহারঃ আজকে আমি আপনাদের সাথে অনলাইনে বিদ্যুৎ বিল চেক করার নিয়ম যেটাকে আমরা অনেকেই বিদ্যুৎ বিল দেখার নিয়মও বলে থাকি। সুতরাং এই বিষয়ে আমি শেয়ার করার চেষ্টা করেছি আশা করি জানতে পেরেছেন। ধন্যবাদ।পল্লী বিদ্যুৎ বিল

Next Post Previous Post
No Comment
Add Comment
comment url