রকেট কোড কত | rocket code koto

প্রিয় পাঠক বন্ধুরা! আজকের এই আর্টিকেলটি আপনার জন্য অনেক উপকারী এবং হেল্পফুল হবে বলে আমি মনে করি।

কেননা আজকের এই আর্টিকেলটিতে আমি আপনাদের সাথে যে বিষয়টি নিয়ে আলোচনা করার চেষ্টা করব সেটা হচ্ছে রকেট কোড কত এই বিষয় সম্পর্কে।

কম বেশি আমরা সকলেই জানি বাংলাদেশের মধ্যে অন্যতম কয়েকটি মোবাইল ব্যাংকিং সেবা রয়েছে তার মধ্যে অন্যতম হচ্ছে রকেট একাউন্ট।

রকেট কোড কত | rocket code koto

আপনিও যদি একজন রকেট একাউন্ট ব্যবহার করে থাকেন অবশ্যই আপনার রকেট একাউন্ট কিভাবে চেক করতে হয় কিংবা রকেট একাউন্ট দেখার রকেট ইউএসএসডি কোড জানা অবশ্যই দরকার।

যেটাকে আমরা অনেকে রকেট কোড কত এই বিষয়টি লিখেই মূলত সার্চ করে থাকি। তাই আপনি যদি এরকম প্রশ্ন গুগল কিংবা ইউটিউবে করে থাকেন এবং সঠিক উত্তর না পান তাহলে আজকের এই আর্টিকেলটি আপনার জন্য।

আরো পড়ুনঃ

তাই আজকের আমি আপনাদের কথা মাথায় রেখে যে সব বিষয় নিয়ে আলোচনা করব তার মধ্যে সবচেয়ে যে বিষয়টি নিয়ে আমি আপনাদের সাথে ব্যাখ্যা করার চেষ্টা করবো সেটা হচ্ছে রকেট কোড কত এই বিষয়টি।

তাছাড়া এই বিষয় ছাড়া আরও অনেক বিষয় সম্পর্কে আলোচনা করার চেষ্টা করব যেগুলো কিনা রকেট একাউন্ট সম্পর্কিত। তাহলে চলুন আর কথা না বাড়িয়ে মূলকথা শুরু করা যাক।

What is rocket code/ রকেট কোড কি?

আমাদের মধ্যে আবার অনেকেই রকেট কোড এটা নাম শুনেছেন কিন্তু আসলে এটা কি সেটা জানেন না। আমরা যদি সিম সম্পর্কিত যে সমস্ত কোম্পানি আছে তাদের দিকে লক্ষ্য করি তখন একটা কোড দেখতে পাই।

যেমন মিনিট ক্রয় করার কোড, এমবি ক্রয় করার কোড, এসএমএস ক্রয় করার কোড সহ আরো বিভিন্ন নির্দিষ্ট প্যাকেজ ক্রয় করার জন্য নির্দিষ্ট কিছু কোড রয়েছে।

যেমন মূলত রবি সিমে আপনি যদি আপনার ব্যালেন্স কথা আছে সেটা জানতে চান তাহলে আপনাকে করতে হবে *২২২# এই কোডটি।

মূলত এই কোডকে অন্য আরেকটি শব্দে বলে থাকে সেটা হচ্ছে ইউএসএসডি কোড। ঠিক তেমনি রবি এয়ারটেল কিংবা গ্রামীণফোনের ইত্যাদির মত রকেট একাউন্টের যাবতীয় ইনফরমেশন চেক করার জন্য যে ইউ এসএসডি রয়েছে সেটাই হচ্ছে মূলত রকেট কোড।

অর্থাৎ আপনার যদি রকেট একাউন্ট থাকে এবং সেটা চেক করার জন্য আপনার মোবাইল ফোনে যে কোডটি ডায়াল করতে হবে সেটাই হচ্ছে রকেট কোড।

এ বেশি সম্পর্কে জানার জন্য অনেকেই আগ্রহী হয়ে থাকেন কিংবা অনেকেই না জানার কারণে তার নিজের একাউন্টে চেক করতে পারবেন না।

See also  এসএসসি 2024 শর্ট সিলেবাস মানবিক | ssc 2024 short syllabus manobik

যার কারণে অনেক সময় গুগলে গিয়ে বিভিন্ন বিষয়ে লিখে সার্চ করার পরেও আমরা আমাদের নির্দিষ্ট সঠিক উত্তরটা খুঁজে পাই না।

তাই আমাদেরকে অনেক সময় অনেক সমস্যার সম্মুখীন হতে হয় তাই আজকে আপনাদের কথা চিন্তা করে আজকের এই আর্টিকেলে মূলত এইসব বিষয় নিয়ে আলোচনা করব ইনশাআল্লাহ।

তাই আপনি যদি এই সমস্যার সম্মুখীন হন এবং এই বিষয় নিয়ে জানতে চান তাহলে আপনাকে আজকের এই পোস্টটি অবশ্যই ভালোভাবে মনোযোগ দিয়ে পড়তে হবে।

আরো পড়ুনঃ গ্রামীণফোন আনলিমিটেড ইন্টারনেট প্যাকেজ

রকেট কোড কত | rocket code koto

আপনি কি আপনার রকেট একাউন্টের যাবতীয় বিষয় দেখতে চান? রকেট একাউন্টের ব্যালেন্স ক্যাশ আউট করতে চান? টাকা সেন্ড মানি করতে চান? বিল পরিশোধ করতে চান? কিন্তু এসব বিষয় কিভাবে করতে হয় জানেন না? তাহলে আজকের এই আর্টিকেলটি আপনার জন্যই।

কেননা আজকের এই আর্টিকেলটিতে রকেট কোড কত এই বিষয়ের পাশাপাশি আমি আরো অনেক বিষয়ে আপনাদের সাথে শেয়ার করতে যাব। তাই আর এদিক ওদিক না গিয়ে সোজা আর্টিকেলটি পড়ে ফেলুন।

আপনি যদি রকেট একাউন্ট চেক করতে চান কিংবা অন্য কোথাও টাকা সেন্ড করতে চান এবং আপনার কাছে যদি স্মার্টফোন না থাকে তাহলে সবচেয়ে সহজ পদ্ধতি যেটা রয়েছে সেটা হচ্ছে রকেট ইউএসএসডি কোড।

আমাদের স্মার্ট ফোন থাকলেও অনেক সময় আমাদের ফোনে ইন্টারনেট কানেকশন না থাকা কিংবা এমবি না থাকার কারণে আমাদেরকে ইউএসএসডি কোড সেটা জানতে হয় রকেট একাউন্টের।

কেননা আমাদের রকেট একাউন্টে যদি টাকা থাকে এবং হঠাৎ যদি আমাদের টাকার প্রয়োজন হয় অবশ্যই সেখান থেকে টাকা ক্যাশ আউট করতে হবে।

এবং টাকা ক্যাশ আউট করার জন্য আপনার কাছে যদি ইন্টারনেট কানেকশন না থাকে তাহলে অবশ্যই ইউএসএসডি কোড এর প্রয়োজন তাই অবশ্যই আপনাকে রকেট একাউন্ট খুব জানা থাকা অবশ্যই দরকার।

তাছাড়া আমাদের অনেকের কাছে স্মার্টফোন পছন্দ না করার কারণে কিংবা থাকার সংকীর্ণতার কারণে স্মার্টফোন ইউজ করতে পারে না।

আরো পড়ুনঃ সৌদি আরবের ঈদ কবে ২০২২ | বাংলাদেশে ঈদুল আজহা কবে হবে 2022

এবং আমাদের বাটন মোবাইল কিংবা ফিউচার মোবাইল ‌ ব্যবহারকারী হওয়ার কারণে আমাদেরকে সেই নির্দিষ্ট রকেট একাউন্টের ইউএসএসডি কোড সম্পর্কে জানা থাকতে হয়।

তাই আপনি যদি আপনার বাটন ফোন কিংবা স্মার্টফোনের মধ্যে সরাসরি ইন্টারনেট কানেকশন ছাড়াই অর্থাৎ তাদের যে অফিসিয়ালি এপস রয়েছে সেটা ব্যবহার না করে আপনার রকেট একাউন্ট ব্যবহার করতে চান তাহলে অবশ্যই আপনার জানা থাকা দরকার। তাহলে চলুন সেই বিষয়টা জেনে নেয়া যাক।

আপনি যদি আপনার বাটন ফোন কিংবা স্মার্টফোনের মধ্যে ইউএসএসডি কোড ডায়াল করার মাধ্যমে আপনার রকেট একাউন্টের যাবতীয় সেবা উপভোগ করতে চান।

তাহলে আপনাকে সর্বপ্রথম আপনার ফোনের ডায়াল পেটে গিয়ে ডায়াল করতে হবে*৩২২# এই কোডটি ডায়াল করার সাথে সাথে আপনার সামনে অনেকগুলো ফিউচারে চলে আসবে।

অর্থাৎ আপনার সামনে অনেকগুলো অপশন দেখতে পাবেন যেগুলো ব্যবহার করে আপনি টাকা সেন্ড মানি করতে পারবেন, ক্যাশ আউট করতে পারবেন, মোবাইল রিচার্জ‌ এবং বিল পে থেকে শুরু করে যাবতীয় বিষয়।

See also  স্বাস্থ্য হওয়ার ঔষধের নাম | মোটা হওয়ার ভিটামিন ট্যাবলেট এর নাম

যেটা কিনা শুধুমাত্র আপনার রকেট একাউন্ট কোড কত এটা জানা থাকলে সম্ভব। কেননা আপনি যদি এই করতে ডায়াল না করেন তাহলে অবশ্যই আপনার সামনে এই ফিউচারগুলো আসবে না।

আরো পড়ুনঃ যমুনা সেতু কত কিলোমিটার | যমুনা সেতু কত সালে উদ্বোধন করা হয়েছে

আশা করি রকেট একাউন্টের ইউএসএসডি কোড সম্পর্কে আপনি অবগত হয়েছেন। তাই আপনি খুব সহজেই আপনার ফোনের মধ্যে উপরে দেওয়া করতে ডায়াল করে সমস্ত কিছু দেখতে পাবেন।

রকেট চেক কোড

আমি আগেই আপনাদের সাথে শেয়ার করেছিলাম রকেট চেক কোড কত এই বিষয়টি।

তাই আমাদের মধ্যে অনেকেই অনেক বিষয় অনেক ধরনের লিখে গুগলের মধ্যে সার্চ করে থাকে।

যেমন অনেকেই রকেট কোড কত এটা লিখে গুগল করে কিংবা আবার অনেকেই রকেট চেক কোড এটা লিখে গুগল করে।

আপনারা যেহেতু এক একটা বিষয় ভিন্ন ভিন্ন ভাবে সার্চ করে থাকেন তাই অবশ্যই আমাকেও ভিন্ন ভিন্ন টাইটেল এর মাধ্যমে একই প্রশ্নের উত্তর বারবার দিতে হয়।

তাই আপনি যদি আপনার রকেট অ্যাকাউন্ট চেক করার জন্য রকেট চেক কোড এই বিষয়টি নিয়ে সার্চ করেন তাহলে আপনিও সেই বিষয়টার উত্তর এখানেই পেয়ে যাবেন।

আপনি আপনার রকেট একাউন্ট দেখার জন্য সর্বপ্রথম আপনার ফোনের ডায়াল প্যাডে গিয়ে ডায়াল করতে হবে *322# এটা লিখে। আশা করি বুঝতে পেরেছেন।

রকেট একাউন্ট খোলার নিয়ম ২০২৩

আপনার কি এখনো রকেট একাউন্ট তৈরি করা হয়নি। এবং কিভাবে একটি রকেট কিংবা মোবাইল ব্যাংকিং একাউন্ট তৈরি করতে হয় এটাই জানেন না।

তাহলে এখন আমি আপনাদেরকে বিস্তারিতভাবে ধারণা না দিলেও একটু একটু ধারণা দেবো যার থেকে কিনা আপনারা মোটামুটি ধারণা পেয়ে যাবেন।

তবে আশাকরি পরবর্তীতে বিস্তারিতভাবে এই বিষয়টা নিয়ে একটা আর্টিকেল দেয়ার চেষ্টা করবো ইনশাআল্লাহ। তাই আপনি যদি আমার এই ওয়েবসাইটে নিয়মিত চোখ রাখেন তাহলে পেয়ে যেতে পারেন।

আমাদেরকে অনেক সময় নানা কারণে মোবাইল ব্যাংকিং কোন না কোন সময় একটু হলেও কাজে লাগে। যদিওবা আমরা বিকাশ একাউন্ট এ বেশি সাপোর্ট করে থাকি।

কিন্তু রকেট যেটা রয়েছে সেটা বিকাশের থেকেও কম না। কেননা রকেট একাউন্ট মূলত ডাচ বাংলা ব্যাংক লিমিটেডের একটি মোবাইল ব্যাংকিং সেবা।

যেহেতু এই রকেট একাউন্টের একটা আসল শাখা অর্থাৎ ব্যাংকিং সেবা যেটা রয়েছে যেটাকে আমরা ডিবিবিএল ব্যাংক নামেই চিনে থাকি।

মূলত ডিবিবিএল ব্যাংকের আন্ডারে এই মোবাইল ব্যাংকিং সেবাটা পরিচালিত হয়ে থাকে। তাই আপনি রকেট একাউন্টের এই সেবাটাকে কম কিছু বলতে পারেন না।

এমনকি আপনি রকেট একাউন্টের মাধ্যমে আপনার গুগল এডসেন্সের টাকা ও আনতে পারেন। বিশেষ করে অনেকেই রকেট একাউন্ট এই কারণেই ব্যবহার করে থাকে।

আপনি যদি রকেট একাউন্ট খুলতে চান এবং কিভাবে খুলতে হয় এই সম্পর্কে জানেনা তাহলে আপনি এখান থেকে সামান্য টুকু হলেও ধারণা পেয়ে যাবেন।

See also  লুডু গেম ডাউনলোড ২০২৩ | লুডু কিং ডাউনলোড করব কিভাবে ?

আরো পড়ুনঃ ড্রাইভিং লাইসেন্স হয়েছে কিনা কিভাবে জানবো

সুতরাং আপনি যদি রকেট একাউন্ট খুলতে চান তাহলে দুইটি উপায়ে অবলম্বন করে খুলতে পারেন

  • ঘরে বসে স্মার্টফোনের মাধ্যমে
  • সরাসরি রকেট মোবাইল ব্যাংকিং একাউন্ট এর কোন এজেন্ট পয়েন্টে গিয়ে

ঘরে বসে রকেট একাউন্ট খোলার নিয়ম

আপনি যদি খুব সহজেই চিন্তা হিসাবে আপনার কাঙ্খিত রকেট একাউন্টটি ক্লিক করতে চান তাহলে সবচেয়ে সহজ পদ্ধতি যেটা রয়েছে সেটা হচ্ছে নিজের স্মার্টফোন ব্যবহার করার মাধ্যমে।

কেননা আপনার কাছে যদি একটা স্মার্ট ফোন থাকে তাহলে আপনি শুধুমাত্র ইন্টারনেট কানেকশন এর মাধ্যমে নিজের ঘরে বসেই খুব সহজে অনায়াসে আপনার কাঙ্খিত একাউন্ট করে নিতে পারেন।

  • তার জন্য অবশ্যই আপনাকে তাদের অফিসিয়ালি যে রকেট অ্যাপস টা রয়েছে সেটা ডাউনলোড করতে হবে।
  • তাই আপনাকে সর্ব প্রথম প্লে স্টোরে গিয়ে সার্চ করতে হবে “রকেট” লিখে সার্চ করার সাথে সাথে আপনার সামনে তাদের অফিসিয়ালি এপসটা চলে আসবে।
  • এখন আপনি সেখান থেকে খুব সহজে অনায়াসে ডাউনলোড করে নিতে পারেন। তো আপনি অ্যাপসটা ডাউনলোড করে ফেলুন।
  • অ্যাপসটা ডাউনলোড করার পরে ওপেন করুন।
  • অ্যাপসটা ওপেন করার পর আপনার সামনে একটা ইন্টারফেস চলে আসবে। যেখানে কিনা আপনার নাম্বার চাওয়া হবে।
  • তো আপনার কাছে যদি আগে থেকে একাউন্টটাকে তাহলে সেখানে লগইন করতে পারবেন নাম্বার দেওয়ার সাথে সাথে।
  • তো নাম্বার দেওয়ার যে অপশনটা চলে এসেছে সেখানে আপনার যে নাম্বারে রকেট একাউন্ট ক্রিয়েট করবেন সেই নাম্বারটা টাইপ করুন।
  • যদি আপনার দেওয়া নম্বরে আগে থেকে রকেট একাউন্ট খোলা না থাকে তাহলে আপনাকে আপনার এনআইডি কার্ডগুলোর সাবমিট করার অপশনটা চলে আসবে।
  • সেখানে আপনার এনআইডি কার্ডের উভয় পার্টটা আপলোড করে দিয়ে দিন।
  • এখন আপনার এনআইডি কার্ড ভেরিফিকেশন করার জন্য আপনার চেহারার মিলকরণ করা হবে। অর্থাৎ আপনার যদি এনআইডি কার্ড নিজের হয়ে থাকে তাহলে সেখানে আপনার চেহারা দেখাতে হবে।
  • আপনি যখন চেহারা দেখে ফেলবেন তখন হয়তো আপনাকে তো ওটিপি পাঠাতে পারে যেটা বসিয়ে দিলেই আপনার অ্যাকাউন্টটা ক্রিয়েট হয়ে যাবে।

এজেন্ট পয়েন্টে গিয়ে রকেট একাউন্ট খোলার নিয়ম

  1. আপনার কাছে যদি স্মার্টফোন না থাকে তাহলে আপনাকে অবশ্যই তাদের এজেন্ট পয়েন্ট যেটা রয়েছে সেখানে যেতে হবে।
  2. তার জন্য আপনি কোন একজন লোকের সাথে জিজ্ঞেস করতে পারেন কোথায় তাদের এজেন্ট পয়েন্ট রয়েছে।
  3. তবে এখন প্রায় বাংলাদেশের প্রতিটি বাজারে এভেলেবল রয়েছে তাদের এজেন্ট পয়েন্ট গুলো। তাদের কাছে গেলেই আপনি একাউন্টটি ক্রিয়েট করতে পারেন।
  4. তার জন্য আপনাকে সর্ব প্রথম তাদের এজেন্ট পয়েন্ট কোথায় আছে সেটা খোঁজাখুঁজি করতে হবে।
  5. তারপর সাথে করে আপনার এনআইডি কার্ডটা নিয়ে যেতে হবে।
  6. সেখানে যাওয়ার পরে তারা বলবে আপনার রকেট একাউন্ট ক্রিয়েট করার জন্য কি কি প্রয়োজন হতে পারে।
  7. সবগুলো যখন তাদের কাছে নিয়ে সরাসরি আপনি চলে যাবেন তখন তারা খুব সহজেই এবং খুব দ্রুত আপনার একাউন্ট ক্রিয়েট করে দেওয়ার চেষ্টা করবে।

আশা করি সামান্য হলেও ধারণা পেয়েছেন কিভাবে ডিবিবিএল ব্যাংক একাউন্টের একটি রকেট মোবাইল ব্যাংকিং একাউন্ট ক্রিয়েট করতে হয়।