আজওয়া খেজুর চেনার উপায় | ভালো খেজুর চেনার ৫ টি উপায়

হ্যালো বন্ধুরা! আমি এর আগে আজওয়া খেজুর সম্পর্কিত একটি আর্টিকেল লিখে ছিলাম। তার মধ্যে একদম আর্টিকেল এর শেষ হয়েছে একটা কথা বলেছিলাম যে আজওয়া খেজুর চেনার উপায় সম্পর্কিত একটা পোস্ট আপনাদেরকে উপহার দিব।

তাই চিন্তা করলাম আজওয়া খেজুর চেনার উপায় সম্পর্কে একটা পোস্ট লিখে ফেলি। তবে তার আগে আমি আপনাদেরকে বলে দিই। আমি সর্বপ্রথম ভলো আজওয়া খেজুর চেনার উপায় এই বিষয়ে জানানোর চেষ্টা করবো।

আজওয়া খেজুর চেনার উপায় | ভালো খেজুর চেনার ৫ টি উপায়
আজওয়া খেজুর চেনার উপায় | ভালো খেজুর চেনার ৫ টি উপায়

তবে আস্তে আস্তে ধীরে ধীরে আরো অন্যান্য কিছু কিভাবে চিনবেন এটাও বর্ণনা করার চেষ্টা করব যেমনঃ মরিয়ম খেজুর চেনার উপায় ইত্যাদি। তাই আপনি যদি খেজুর সম্পর্কিত কিভাবে চিনবেন এটা জানতে চান তাহলে আর্টিকেলটি অবশ্যই শেষ পর্যন্ত পড়বেন। তাহলে চলুন আর কথা না বাড়িয়ে শুরু করা যাক।

আরো পড়ুনঃ আজওয়া খেজুরের দাম এবং অনলাইন ক্রয় করার নিয়ম ইত্যাদি

আজওয়া খেজুর চেনার উপায়

আজওয়া খেজুরের অন্যতম একটা বৈশিষ্ট্য হচ্ছে কালো কুচকুচে। অন্যান্য বছরের তুলনায় আজওয়া খেজুরের সাইজ সামান্য ছোট।

আপনি যদি এমন আজওয়া খেজুর দেখতে পান যে লালচেভাব, একটু ভেজা ভেজা, আকারে অনেক ছোট তাহলে বুঝতে পারবেন এগুলো আসল আজওয়া খেজুর নয়। অর্থাৎ এটি যদিওবা আজওয়া খেজুর কিন্তু নিম্নমানের যে সমস্ত রয়েছে সেগুলো।

আপনি আজওয়া খেজুর যত বেশি তাহলে দেখবেন ততো সেগুলো মান সম্পন্ন। তবে খেজুরের গুড় টা যেটা রয়েছে সেটা হালকা লালচে ভাব হবে। তবে আপনি আজওয়া খেজুর ক্রয় করার সময় একটা বিষয় লক্ষ করবেন সেটা হচ্ছে। আপনি যদি খেজুরের মধ্যে হালকা হালকা ভেজা দেখতে পান তাহলে বুঝবেন সেই খেজুরগুলো আগেই মজুদ করা ছিল।

তবে যে সমস্ত খেজুরগুলো নতুন আমদানি করা হয় অর্থাৎ নতুন আনা হয়েছে কোন এক দেশ থেকে তখন সেগুলো শুকনো চকচকে দেখতে পাবেন। যে সমস্ত খেজুর গ্রেট ওয়ানে রয়েছে সেগুলো আপনি সইজে বড় দেখতে পাবেন।

আশা করি সামান্য হলেও জানতে পেরেছেন আজওয়া খেজুর চেনার উপায় সম্পর্কে। তো এখন আমরা জানবো ভালো মরিয়ম খেজুর কিভাবে চিনবেন এ বিষয় সম্পর্কে।

আরো পড়ুনঃ নগদ একাউন্ট দেখার কোড | নগদ উপবৃত্তির টাকা দেখার নিয়ম

See also  অষ্টম শ্রেণীর অ্যাসাইনমেন্ট | 8m class assignment

ভালো খেজুর চেনার ৫ টি উপায়

আমরা সকলেই জানি খেজুর সবচেয়ে সুস্বাদু একটি ফল এবং এখানে রয়েছে অনেক উপকারিতা। যে সমস্ত মানুষ মিষ্টি খেতে পারে না তাদের জন্য খেজুর অত্যন্ত উপকারী একটা মিষ্টি ফল।

অর্থাৎ যে সমস্ত লোকজনকে ডাক্তার ইত্যাদি মানা করেছে যে তুমি মিষ্টি জাতীয় এ সমস্ত জিনিস খেওনা। আশা করি তাদের কোন প্রকার ক্ষতি হবে না খেজুরের মিষ্টির কারনে। আমরা আগের আর্টিকেলও বলেছিলাম পুরো পৃথিবীর মধ্যে প্রায় তিন হাজার প্রজাতির খেজুর বিদ্যমান রয়েছে।

বিশেষ করে যখন রমজান মাস চলে আসে তখন মুসলমানদের মাঝে খেজুরের চাহিদা অনেক বেড়ে যায় আগের তুলনায়। তাই অনেক অসাধু ব্যবসায়ীরা আছে যারা কিনা এই সুযোগকে কাজে লাগিয়ে ভেজাল এবং মেয়াদহীন খেজুর ক্রেতাদেরকে ঢুকিয়ে দেই।

তাই আজকের এই আর্টিকেলে এখন আমরা আপনাদেরকে এমন পাঁচটি উপায় সম্পর্কে জানাবো আশা করি যেগুলো থেকে আপনারা মোটামুটি ধারনা পাবেন কিভাবে ভালো কিছু খুঁজে পাওয়া যায়। অর্থাৎ ভালো খেজুর চেনার উপায়।

আরো পড়ুনঃ চিকন হওয়ার উপায় কি? দ্রুত চিকন হওয়ার উপায় | চিকন হওয়ার ঔষধ

অবশ্যই আপনি যখন বাজার থেকে কোন খেজুর ক্রয় করবেন তখন অবশ্যই দেখে নিবেন যে কোন প্রকার ভেজাল মিশ্রিত খেজুর আছে কিনা। কিভাবে জানবেন খেজুরগুলো ভেজাল? এটাই হয়তো অনেকের মনেই প্রশ্ন জাগতে পারে।

তো কিভাবে আপনি ভাল খেজুর চিনবেন এটা যখন জেনে যাবে আর এই প্রশ্ন উঠবে না আপনার কাছ থেকে। তাই ভাল কিছুই চায় না চায় সে সম্পর্কে জানার জন্য আমার এই পাঁচটি টিপস আপনি অবলম্বন করতে পারেন। তাহলে চলুন আর কথা না বাড়িয়ে শুরু করা যাক।

আমি যদি আপনাদেরকে কিভাবে ভাল খেজুর চিনতে হয় এ বিষয়ে সম্পর্কে ধারণা দেই তাহলে অনেক কিছু বলার আছে। কিন্তু বেসিক তিনটি জিনিসের উপর নির্ভর করে ভাল খেজুর নির্ণয় করা সম্ভব। এখন আমি আপনাদেরকে পাঁচটি টিপস শেয়ার করবো যেগুলো আপনার কাজে আসবে।

১/ যে সমস্ত খেজুর এর চামড়া কুঁচকানো হবে সেগুলো বুঝবেন ভালো এবং সতেজ খেজুর। তবে এই সমস্ত ভালো খেজুর যেগুলো রয়েছে সেগুলো বেশি শক্ত হয় না। তবে আবার এটাও মনে রাখবেন যে উপরের চামড়া গুলো বেশি নরম হয়না। আপনি দেখলেই বুঝে যাবেন এই খেজুর গুলো ভালো নাকি খারাপ কেননা যে সমস্ত ভাল খেজুর রয়েছে সেগুলোর চামড়া চকচকে এবং উজ্জ্বল দেখায়।

See also  ড্রাইভিং লাইসেন্স হয়েছে কিনা কিভাবে জানবো

আবার সেই খেজুর গুলোর সাথে কোন প্রকার এসপট যুক্ত দানাদার কিংবা অন্য কোন কিছু উপস্থিত থাকবে না। তবে অনেক সময় দেখা যায় অনেক খেজুরের গাই তৈলাক্ত জাতীয় কিছু পদার্থ থাকে। যদি ঐ সমস্ত কোন জিনিস উপস্থিত থাকবে তবে মনে করবেন সেগুলোতে ভেজাল মিশ্রিত রয়েছে।

আরো পড়ুনঃ স্কিটো সিমের নাম্বার কেমন | স্কিটো সিমের নাম্বার চেক

২/ আমরা সকলেই জানি পুরো পৃথিবীর মধ্যে প্রায় অনেক দেশেই খেজুর উৎপাদিত হয়ে থাকে। তবে আসলে সব খেজুরের মান এবং মিষ্টি এক নয়‌। অর্থাৎ অনেক সময় দেখা যায় ভিন্ন অঞ্চলের ভিন্ন খেজুরের ভিন্নরকম স্বাদ রয়েছে।

আমরা আগের আর্টিকেলে বলেছিলাম পুরো পৃথিবীর মধ্যে সবচেয়ে বেশি যে দেশে খেজুর উৎপাদিত হয় সেই দেশটার নাম হচ্ছে মিশর। এবং দ্বিতীয় অবস্থানে আছে ইরান এবং খেজুর উৎপাদনের দিক থেকে সৌদি আরব রয়েছে তৃতীয় অবস্থানে তারপর অর্থাৎ চতুর্থ স্থানে রয়েছে সংযুক্ত আরব আমিরাত।

তারপরে যে সমস্ত দেশ গুলো খেজুর উৎপাদনের লিস্টিতে রয়েছে সেগুলো হচ্ছে পাকিস্তান, আলজেরিয়া এবং আফগানিস্তানের মতো দেশগুলো। তাই অবশ্যই খেজুর ক্রয় করেন আগে জেনে নিবেন আপনি কোন দেশের খেজুর বিক্রি করতে চান সেটা। উৎপাদনের ক্ষেত্রে থেকে তো আপনি বুঝতে পেরেছেন কোন দেশের খেজুর গুলো ভালো হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

৩/ প্রায় তিন হাজার প্রজাতির খেজুর বিদ্যমান রয়েছে তার মধ্যে আমাদের দেশে যে সমস্ত খেজুরগুলো সবচেয়ে বেশি চলমান সেগুলো হচ্ছে মরিয়ম,আম্বর,আজওয়া ইত্যাদি।

৪/ খেজুর ভালো নাকি খারাপ এটা চেক করার আরেকটি সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ উপায় হচ্ছে উপস্থিত খেজুর এর স্বাদ। অর্থাৎ আপনি যখন খেজুর ক্রয় করবেন তখন দেখবেন যে বর্তমান খেজুরের মিষ্টি কেমন হয়েছে।

আরো পড়ুনঃ ঈদুল আযহা নামাজের নিয়ম | ঈদুল আযহার নামাজের নিয়ত

যদি দেখতে পান মিষ্টি অনেক বেশি অসহনীয় কিংবা অনেক কম তাহলে বুঝবেন এখানে ভেজাল মিশ্রিত রয়েছে অর্থাৎ খেজুর হইতো খারাপ জায়গায় কিংবা বেশি দিন রাখার কারণে নষ্ট হয়ে গেছে। কিংবা অন্য কোন ভেজাল মিশ্রণ করার কারণে খেজুরের মিষ্টি দ্বিগুণ হয়ে গেছে।

তবে আবার এটাও মনে রাখবেন যে যেগুলো বেশি মিষ্টি নয় সেগুলো ভেজাল মিশ্রণ করা। অর্থাৎ সেই খেজুরগুলো কোন একটা কারনে মিষ্টি কমে গেছে। তাই অবশ্যই দেখে শুনে ক্রয় করার চেষ্টা করবেন।

See also  অনলাইনে ট্রেনের টিকেট কাটার নিয়ম 2024।ট্রেনের টিকেট কাটার সময়।ট্রেনের টিকেট ফেরত দেয়ার নিয়ম

তাই যে সমস্ত খেজুরগুলো আসল কোন প্রকার ভেজাল মিশ্রণ করা নেই সাধারণত সেই খেজুরগুলো বেশি মিষ্টি ও হয় না আবার কম মিষ্টি ও হয় না। সহনীয় ভাবে এবং খুব মজা লাগে (মধ্যম অবস্থায় থাকে)।

৫/ এখন আমি আপনাদের সামনে ভাল খেজুর চেনার জিওপায় টি শেয়ার করব সেটা হচ্ছে খুব একটা গুরুত্বপূর্ণ উপায়। তাই আপনি ভালভাবে এটি লক্ষ করার চেষ্টা করবেন।

যখন আপনি খেজুর ক্রয় করতে বাজারে কিংবা কোন একটা খেজুরের দোকানে প্রবেশ করবেন। তখন যদি সেখানে উপস্থিত মাছি কিংবা অন্য যে কোন পোকা মাকড় দেখতে পান তাহলে বুঝবেন সেই খেজুর গুড়ের ভেজাল মিশ্রণ করা রয়েছে।

কেননা যখন কোন একটা খাদ্য কিংবা খেজুরে চিনি কিংবা অন্য যে কোন উপাদান মিশ্রন করা হয় তখন সেগুলোতেই মাছি তো অবশ্যই আসবে। তার জন্য খেজুর নেওয়ার পরে কোন এক খোলা জায়গায় রাখার চেষ্টা করবেন।

যখন দেখতে পাবেন যে খেজুর রাখার পরে সেখানে মাছি আকৃষ্ট হচ্ছে তাহলে বুঝবেন সেগুলোতে কোন এক কৃত্রিম উপাদান মিশ্রন করা হয়েছে। তাই অবশ্যই দেখেশুনে খেজুর ক্রয় করার চেষ্টা করবেন।

আরো পড়ুনঃ কোরবানির ঈদ কবে 2022 | ঈদুল আযহা ২০২২ কত তারিখে

মরিয়ম খেজুর চেনার উপায়

আবার অনেকেই অন্যান্য খেজুরের তুলনায় মরিয়ম খেজুর খেতে বেশী স্বাচ্ছন্দ্যবোধ মনে করেন। তার জন্য অবশ্যই মরিয়ম খেজুর চেনার উপায় সম্পর্কে জানতে হবে। তা না হলে বাজার থেকে মরিয়ম খেজুর এর বদলে অন্য খেজুর নিয়ে আসবে।

যেহেতু মরিয়ম খেজুর হোক কিংবা আজওয়া খেজুর খেজুর তাহলে আপনি একটা বর্ণনা করার কারণে অন্য আরেকটা সেখান থেকে বুঝে যাবেন কিভাবে ভাল খেজুর চেনা যায়।

মোট কথা হচ্ছে আমি যেহেতু উপরে পাঁচটি উপায় সম্পর্কে আপনাদেরকে বলে দিয়েছি কিভাবে আপনারা ভালো মানের খেজুর নির্ণয় করবেন সেটা। তাই আপনি যদি মরিয়ম খেজুর চ্যানেল উপায় সম্পর্কে জানতে চান তাহলে সেখান থেকে আন্দাজ করে নিতে পারেন।

বিঃদ্রঃ আমি যেহেতু আপনাদের মতই একজন মানুষ তাই অবশ্যই আমার ভুল হবে এটাতে কোন সন্দেহ নেই। তাই আপনারা যদি আজকের এই আর্টিকেল কিংবা অন্য কোন আর্টিকেলে ভূল দেখতে পান তাহলে অবশ্যই কমেন্ট করে জানিয়ে দিবেন।

উপসংহারঃ আজকের এই আর্টিকেল থেকে যদি আপনি একটু হলেও উপকৃত হতে পারেন তাহলে আপনার বন্ধু-বান্ধব কিংবা আত্মীয়স্বজনের কাছে শেয়ার করতে ভুলবেন না। কেন না আপনার একটি শেয়ারই কারণে অনেক অজানা ব্যক্তি ভালো খেজুর চেনার উপায় সম্পর্কে জেনে যাবে। ধন্যবাদ।