Advertise

ডিজিটাল জন্ম নিবন্ধন কার্ড | digital jonmo nibondhon card

ডিজিটাল জন্ম নিবন্ধন কার্ডঃ- জন্ম নিবন্ধন প্রত্যেকের জন্য একটি গুরুত্বপূর্ণ সার্টিফিকেট। যে কিনা আপনার বাংলাদেশের জাতীয়তা হওয়ার জন্য অনেকাংশেই বলতে গেলে পুরোটাই নির্ভর করে। কেননা আমরা সকলেই জানি কোন একটা নতুন এনআইডি কার্ড করার ক্ষেত্রে অবশ্যই জন্ম নিবন্ধন অনলাইন কপি প্রয়োজন হয়। কিন্তু এটাকে অনেকে আবার ডিজিটাল জন্ম নিবন্ধন কার্ড হিসেবে চিনে থাকে। 

তাই আপনিও যদি জন্ম নিবন্ধন সংক্রান্ত নানা বিষয় সম্পর্কে জানতে চান আব্বাজানের আগ্রহী হয়ে থাকেন তাহলে আজকের এই আর্টিকেলটি আপনার জন্যই লেখা হয়েছে। কেননা আজকের এই আর্টিকেলে আমি জন্ম নিবন্ধন সংক্রান্ত বিভিন্ন তথ্য নিয়ে আর্টিকেলটি সাজানোর চেষ্টা করেছি। তাহলে চলুন আর কথা না বাড়িয়ে মূল আলোচনায় চলে যাওয়া যাক।

আরো পড়ুনঃ

ডিজিটাল জন্ম নিবন্ধন কার্ড | digital jonmo nibondhon card
ডিজিটাল জন্ম নিবন্ধন কার্ড | digital jonmo nibondhon card


ডিজিটাল জন্ম নিবন্ধন কার্ড করার নিয়ম। পুরাতন জন্ম নিবন্ধন অনলাইন করার নিয়ম।

হাতে লেখা পুরাতন জন্ম নিবন্ধন কিভাবে অনলাইনে নিয়ে আসবেন। আপনার জন্ম নিবন্ধন যদি অনলাইনে না থাকে তাহলে কি করতে হবে এসব বিষয় নিয়ে জানার আগ্রহ থাকলে এখনি জেনে নিন।

আপনার কাছে যে জন্ম নিবন্ধন টি রয়েছে সেটি কি হাতের লেখা? বা আপনার কাছে জন্ম নিবন্ধন ফি ইন করা যেটি রয়েছে সেটি কি অনলাইনে নেই? তাহলে আর কোন চিন্তা নেই কেননা আজকের আর্টিকেলে অনেক কিছু বিষয় নিয়ে আলোচনা করব। তার মধ্যে অন্যতম হচ্ছে পুরাতন জন্ম নিবন্ধন কিভাবে অনলাইনে করতে হয় এটা। হাতে লিখা জন্ম নিবন্ধন কিভাবে অনলাইন করতে হয় বা ডিজিটাল জন্ম নিবন্ধন কার্ড করার নিয়ম সম্পর্কে বিস্তারিত জানার জন্য অবশ্যই আর্টিকেলটি একদম না টেনে শেষ পর্যন্ত পড়ুন।

আমরা সকলেই জানি বর্তমান সময়ে কোন একটা জন্ম নিবন্ধন কে কাজে লাগাতে হলে অবশ্যই সেটা অনলাইনে থাকতে হবে কিংবা ডিজিটাল হতে হবে। তাই আপনার বর্তমান সংরক্ষিত জন্ম নিবন্ধন যদি ডিজিটাল জন্ম নিবন্ধন কার্ড না হয়ে থাকে সে ক্ষেত্রে অবশ্যই সেটা কে অনলাইনে নিয়ে আসতে হবে। না হলে আপনার থাকা সার্টিফিকেট কোন কাজেই আসবে না।

জন্ম নিবন্ধন অনলাইনে না থাকলে কি করতে হবে। ডিজিটাল জন্ম নিবন্ধন কার্ড। ডিজিটাল জন্ম নিবন্ধন কার্ড 

আপনি যদি আপনার জন্ম নিবন্ধন এর সঠিক নাম্বার এবং এর জন্ম তারিখ দিয়ে সার্চ দেওয়ার পর আপনার সার্টিফিকেটে জন্ম নিবন্ধন অনলাইনে পাওয়া না যায়। সেক্ষেত্রে অবশ্যই আপনাকে আগে বের করতে হবে কেন আপনার জন্ম নিবন্ধন অনলাইনে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। কারণ বের করার পর যদি আপনি দেখতে পান সত্যিই আপনার জন্ম নিবন্ধন অনলাইনে অর্থাৎ অনলাইন ডাটাবেজে নেই। তাহলে অবশ্যই আপনাকে আরেকটি নতুন জন্ম নিবন্ধন করতে হবে কিংবা আপনার হাতে থেকে জন্ম নিবন্ধন অনলাইন করার জন্য আবেদন করতে হবে। এছাড়া আর কোন উপায় নেই আপনার জন্ম নিবন্ধন ডিজিটাল জন্ম সনদ করার জন্য। আশা করি বুঝতে পেরেছেন ডিজিটাল জন্ম নিবন্ধন কার্ড না থাকলে করণীয় কি।

হাতে লেখা বা পুরাতন জন্ম নিবন্ধন অনলাইনে করার উপায় কি | ডিজিটাল জন্ম নিবন্ধন কার্ড 

আপনার হাতের লেখার জন্ম নিবন্ধন কিংবা পুরাতন জন্ম নিবন্ধন যদি আপনার অনলাইন ডাটাবেজে পাওয়া যায় সেক্ষেত্রে অবশ্যই আপনাকে সর্বপ্রথম চেক করতে হবে যে, আপনার বর্তমান থাকা জন্ম নিবন্ধন টি 17 ডিজিটের কিনা। যদি আপনি চেক করে পান যে আপনার জন্ম নিবন্ধন টি 17 ডিজিটের তাহলে আপনাকে আবার চেক করতে হবে সেই 17 ডিজিটের প্রথম চারটি অক্ষর আপনার জন্ম সাল কিনা। এই সবগুলো তত্ত্বটি থাকার পরেও যদি আপনার জন্ম নিবন্ধন অনলাইনে পাওয়া না যায় সে ক্ষেত্রে অবশ্যই আপনাকে আরেকটি নতুন জন্ম নিবন্ধন করতে হবে।

ডিজিটাল জন্ম নিবন্ধন কার্ড ডাউনলোড | জন্ম নিবন্ধন অনলাইন কপি ডাউনলোড 

আপনি যদি আপনার জন্ম নিবন্ধন ডাউনলোড করতে চান সে ক্ষেত্রে অবশ্যই আপনার জন্ম নিবন্ধন অনলাইনে এভেলেবেল থাকতে হবে। কেননা আপনি তো জানেন আমি কোন একটা জিনিস যদি অনলাইনে পাওয়া যায় সেটা ডাউনলোড করা পসিবল নয়। তো আপনি যদি আপনার জন্ম নিবন্ধন অনলাইন থেকে ডিজিটাল জন্ম নিবন্ধন কার্ড ডাউনলোড করতে চান সে ক্ষেত্রে অবশ্যই সেটা আগে অনলাইনে আছে কিনা চেক করতে হবে। তাই আপনার জন্ম নিবন্ধন অনলাইনে আছে কিনা চেক করতে এখানে ক্লিক করুন

এখানে ক্লিক করার পর যদি আপনার জন্ম নিবন্ধন ফি অনলাইন মেয়ে খুঁজে পান কিংবা অ্যাভেলেবল থাকে তাহলে নিচের পদ্ধতিটি অবলম্বন করে আপনার জন্ম নিবন্ধন ফি অনলাইন থেকে ডাউনলোড করে নিন। অর্থাৎ এখন আমি আপনাদের সাথে শেয়ার করব ডিজিটাল জন্ম নিবন্ধন কার্ড ডাউনলোড করার নিয়ম কি।

আমি আপনাকে যেখানে ক্লিক করতে বলেছিলাম সেখানে ক্লিক করার পর সেই আর্টিকেলটি পড়ে যখন আপনি আপনার জন্ম নিবন্ধন চেক করবেন তখন আপনার সামনে আপনার জন্ম নিবন্ধন চলে আসবে যদি সেটি অ্যাভেলেবল থাকে অনলাইনের মধ্যে। যদি আপনার জন্ম নিবন্ধন অনলাইনে অ্যাভেলেবল থাকে তাহলে আপনার সামনে সেটাই চলে আসবে। আপনার সামনে আপনার জন্ম নিবন্ধন দিয়ে চলে আসার পর এখন আপনাকে কম্পিউটার থেকে সেটা পিডিএফ আকারে ডাউনলোড করতে হবে।

এখন পিডিএফ আকারে ডাউনলোড করার জন্য আপনার কম্পিউটার থেকে প্রিন্ট কমান্ড দেওয়ার পরে প্রিন্ট টু পিডিএফ সিলেক্ট করার পর আপনার জন্ম নিবন্ধন টি পিডিএফ ফাইল আকারে ডাউনলোড করে নিন। এবং আপনার কম্পিউটারে যদি সেই সার্ভিস অ্যাভেলেবেল না থাকে অর্থাৎ প্রিন্ট টু পিডিএফ এভেলেবেল না থাকে তাহলে দেখুন কিভাবে ডকুমেন্টকে পিডিএফ ফাইল আকারে ডাউনলোড করতে হবে বা ডকুমেন্টকে পিডিএফ ফাইল তৈরি করবেন।ডিজিটাল জন্ম নিবন্ধন কার্ড 

তাছাড়া আপনার কাছে যদি প্রিন্টার অ্যাভেলেবল থাকে তাহলে তো আরো ভালো সেখানে আপনাকে আর পিডিএফ ফাইল আকারে ডাউনলোড করতে হচ্ছে না। কেননা আপনি একেবারেই একটা ফটোকপি সেন্ড করে নিতে পারতেছেন এবং সংরক্ষন করতে পারবেন আপনার জন্ম নিবন্ধনটি সারা জীবনের জন্য। তাই আপনার প্রিন্টারে থাকলে একেবারে প্রিন্ট করে ফেলার চেষ্টা করবেন।

আরো পড়ুনঃ 

ঈদের নামাজ কি? ঈদের নামাজ পড়ার নিয়ম ও নিয়ত। বিস্তারিত

বাংলাদেশবনাম শ্রীলংকা সিরিজের সময়সূচি | বাংলাদেশ বনাম শ্রীলঙ্কা টেস্ট ম্যাচ | Bangladesh vs Sri Lanka test



Next Post Previous Post
No Comment
Add Comment
comment url