মালয়েশিয়া ভিসা কবে খুলবে 2024।মালয়েশিয়া কি কি কাজ রয়েছে।

দিনের পর দিন যাচ্ছে কিন্তু কখন মালয়েশিয়ার ভিসা খুলবে এই নিয়ে চিন্তিত লোকজন। হুট করেই এক জায়গায় দেখতে পেলাম মালয়েশিয়ার ভিসা নাকি তিন বছর পর খুলছে। আজকের এই আর্টিকেলটি ঐ সমস্ত লোকদের জন্য সাজানো হয়েছে যারা কিনা মালয়েশিয়ার ভিসা কবে খুলবে এই নিয়ে চিন্তিত আছেন। 

মালয়েশিয়া ভিসা কবে খুলবে 2024

বা অনেকেই আছেন যারা কিনা মালয়েশিয়ার ভিসা না পাওয়ার জন্য ঘরে বসেই আছেন। তো আজকে আর্টিকেলে আমি আপনাদের সাথে শেয়ার করব মালেশিয়ার ভিসা কবে খুলবে কারা কারা যেতে পারবে ইত্যাদি বিষয় সম্পর্কে আরও বিস্তারিত। আমি আরো বলার চেষ্টা করব মালয়েশিয়া কাজের বেতন কত।

আরো পড়ুনঃ জন্ম নিবন্ধন যাচাই। জন্ম নিবন্ধন অনলাইন কপি ডাউনলোড

মালয়েশিয়া ভিসা কবে খুলবে

এখন আমি আপনাদের সাথে শেয়ার করব মালয়েশিয়ার ভিসা আসলে কবে খুলবে। অনেক লোকজন আছে যারা কিনা মালয়েশিয়ার ভিসার জন্য অপেক্ষা করে আছেন অনেকদিন থেকেই। মালয়েশিয়া ভিসা কবে খুলবে।

তারই ফলস্বরূপ প্রায় তিন বছর পরে 19 ডিসেম্বর 2024 সালে বাংলাদেশিদের জন্য ভিসার অনুমতি দিয়েছে মালয়েশিয়া। অর্থাৎ এখন আপনি জানতে পেরেছেন 19-12-2024 বাংলাদেশিদের জন্য মালয়েশিয়া ভিসা চালু করে দিয়েছে।মালয়েশিয়া ভিসা কবে খুলবে।

মূলত বাংলাদেশ এবং মালয়েশিয়ার মধ্যে ভিসা বন্ধের মূল কারণ হচ্ছে শ্রমিক নেয়ার অবৈধ সিন্ডিকেট। মূলত এই অবৈধ সিন্ডিকেটের বন্ধ করার লক্ষ্যে বিগত তিন বছর মালয়েশিয়ার ভিসা বন্ধ ছিল। 

আরো পড়ুনঃ বিকাশ একাউন্ট খোলার নিয়ম।বিকাশ অ্যাপ ডাউনলোড। বিকাশ সম্পর্কে বিস্তারিত

অর্থাৎ মালয়েশিয়ার কাজের জন্য বাংলাদেশ থেকে কোন লোক নেওয়া হয়নি গত তিন বছর। এমনকি এমন এক সময় ছিল যখন মালয়েশিয়ার সরকার যারা অবৈধ বাংলাদেশিরা তাদের দেশে বসবাস করত। তাদেরকে কার্ড বিহীন অবস্থায় মালয়েশিয়া থেকে ধরে ধরে বাংলাদেশে পাঠিয়ে দেয়।মালয়েশিয়া ভিসা কবে খুলবে।

See also  পাসপোর্ট দিয়ে কি বিকাশ একাউন্ট খোলা যায় | জন্ম নিবন্ধন দিয়ে কি বিকাশ একাউন্ট খোলা যায়

যদি এমন হয়ে থাকে তাহলে হঠাৎ আপনাদের এবং সবার একটি প্রশ্ন জাগতে পারে। প্রশ্নটা হচ্ছে হঠাৎ কেন মালয়েশিয়ার সরকার বাংলাদেশীদের এত দরদ দেখিয়ে ভিসার অনুমতি দিয়ে দিল।মালয়েশিয়া ভিসা কবে খুলবে।

মূলত বাংলাদেশ থেকে মালয়েশিয়া তে লোক নেওয়ার মেইন কারণ হচ্ছে তাদের এখানে দক্ষ কারিগরের অভাব। অর্থাৎ তাদের দেশে এমন হ্যালো বলতে গেলে খুবই কম যারা কিনা খুব কষ্ট করে কাজকর্ম করবে। এর ভিত্তিতে বাংলাদেশ থেকে তারা এখন লোক নেওয়া আরম্ভ করেছে। 

যার কারণে শুধুমাত্র মালয়েশিয়া বাংলাদেশ দের জন্য কাজের ফরমিট ভিসা খুলে দিয়েছে। তাহলে এখন আমরা জানবো কি ক্ষেত্রে মালয়েশিয়া বাংলাদেশ থেকে লোক নিবে বা কি ক্ষেত্রে ভিসার অনুমতি দিবে।

আরো পড়ুনঃ  ইউটিউবে (You Tube) নিজের ভিডিও নিজে বা বারবার দেখলে কি হতে পারে।

মালয়েশিয়া কি কি কাজ রয়েছে।

১. কৃষিকাজ।

আমরা সকলেই জানি সাধারণত কৃষিকাজ সমস্ত দেশেই হয়ে থাকে। তেমনি মালয়েশিয়াতে কৃষি কাজের চাহিদা রয়েছে অনেক। তাই আপনি যদি ভাল কৃষি কাজ করতে জানেন বা কৃষিকাজ সম্পর্কে অনেক ধারণা থাকে তাহলে আপনাকে মালয়েশিয়াতে গিয়ে বসে থাকতে হবে না আশাকরি। মালয়েশিয়া কি কি কাজ রয়েছে।

আর আপনার যদি জানেন ফাম গাছ সম্পর্কে ধারনা থাকে তাহলে তো আরো ভালো। কেননা সেই পাম গাছ থেকে পাম অয়েল তৈরি হয় মালয়েশিয়াতে। সেক্ষেত্রে তাদের অনেক লোকের প্রয়োজন পড়ে যদি আপনি জানেন তাহলে তো তাদের অন্তর্ভুক্ত আপনি হয়ে যেতে পারবেন।মালয়েশিয়া কি কি কাজ রয়েছে।

২. নির্মাণ শ্রমিক।

বলতে গেলে এখন নির্মাণ শ্রমিকের চাহিদা অনেক বেশি। আপনি যেখানেই যান না কেন নির্মাণশ্রমিকের আস্তানায় দেখবেন অবশ্যই। তদ্রূপ মালয়েশিয়াতেও রয়েছে নির্মাণ শ্রমিক কারখানা। অর্থাৎ যাদের কাছ থেকে বিভিন্ন বড় বড় ব্যবসায়ী বা বড়লোক জনেরা অনেক কাজ করিয়ে নিয়ে থাকে।মালয়েশিয়া কি কি কাজ রয়েছে।

See also  কিভাবে ssc রেজাল্ট দেখবো। সকল বোর্ডের এসএসসি রেজাল্ট দেখার নিয়ম।

তাই আপনি যদি বিল্ডিং নির্মাণ ইত্যাদির কাজ সম্পর্কে ধারনা থাকে তাহলে আপনিও নির্মাণশ্রমিক হিসেবে কাজ করতে পারবেন মালয়েশিয়াতে। যেটাকে আমাদের দেশে রাজমিস্ত্রি বলা হয়ে থাকে।মালয়েশিয়া কি কি কাজ রয়েছে।

৩. সেবা কর্ম।

আপনি যদি একটু ভালো লেখাপড়ার যোগ্যতা রাখেন তাহলে এই কাজটি আপনার জন্য অত্যন্ত সুবিধাজনক বা লাভজনক। সেবা কর্ম বলতে রিসোর্ট হোটেল ইত্যাদিতে কাজকর্ম করা। তাই আপনি যদি এসব বিষয়ে দক্ষতা অর্জন করতে পারেন বা এই কাজগুলো সম্পর্কে আপনার জ্ঞান থাকে তাহলে আপনি মালয়েশিয়াতে কাজের অভাব দেখতে পাবেন না।মালয়েশিয়া কি কি কাজ রয়েছে।

আরো পড়ুনঃ আলাপ অ্যাপ কি?আলাপ অ্যাপ এর সুবিধা কি কি? আলাপ অ্যাপ কল রেট।

মালয়েশিয়া যেতে কত বয়স লাগে।

সাধারণত মালয়েশিয়া হোক কিংবা অন্য কোন ভিসা। প্রত্যেক ভিসার জন্য সাধারণত 21 বছর হওয়া লাগে। আর আপনার বয়স যদি 21 এর নিচে হয়ে থাকে তাহলে আপনি বয়স বাড়িয়ে ভিসা করিয়ে নিতে পারেন। সে ক্ষেত্রে আপনারা ইউনিয়ন পরিষদ সিটি কর্পোরেশন কিংবা পৌরসভা তে গিয়ে যোগাযোগ করতে হবে। আশা করি মালয়েশিয়া যেতে কত বয়স লাগে এ বিষয়ে সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে পেরেছেন।

Collect Your Privet Key

মালয়েশিয়া যেতে কত টাকা লাগে।

ভিসার দাম বিভিন্ন সময় বিভিন্ন দামে পরিবর্তন হয়ে থাকে। সাধারণত ভিসা কয়েক ধরনের রয়েছে তার মধ্যেই প্রত্যেকটি ভিসার দাম আলাদা আলাদা। কয়েকটি ওয়েবসাইট ঘাটাঘাটি করে দেখতে পারলাম ভিসার মধ্যে সবচেয়ে নিম্নমানের মালয়েশিয়ার ভিসার দাম তিন লক্ষ 50 হাজার টাকা প্রায়।